পরনে লাল শাড়ি সরু স্ট্র্যাপের ব্লাউজ, মিঠাই সৌমিতৃষার মোহময়ী লুকে ফিদা দর্শকরা

বর্তমান সময়ের ধারাবাহিকগুলোর মধ্যে মিঠাই বেশ জনপ্রিয়। একদিকে কিছু মানুষের মতে মিঠাই চরিত্রটি ন্যাকামীটা ভরপুর। অনেকের কাছে এটাই কিউট। তবে টি আর পি লিস্টের প্রথম দিকেই সবসময় জায়গা পেয়ে এসেছে মিঠাই। মিঠাই ধারাবাহিকে এখন টানটান উত্তেজনা চলছে।

এটি মিঠাই ধারাবাহিকের ধামাকেদার পর্ব। তবে এটিকে মিঠিই ধারাবাহিকের ধামাকেদার পর্ব না বলে মোদক পরিবারের কঠিন সময় বলা যেতে পারে। সকলের প্রিয় মিঠাই রানী এখন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। ওমি আগারওয়ালের গুলিতে আহত হয়েছে সে। এরপর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। কিন্তু জ্ঞান ফেরে না মিঠাই এর। জ্ঞান না ফেরায় উদ্বিগ্ন গোটা মোদক পরিবার। পাশাপাশি উদ্বিগ্ন মিঠাইয়ের দর্শকেরাও। মিঠাই এর জ্ঞান ফেরাতে হল্লা পার্টি গান পর্যন্ত করে।

হাসপাতলে মিঠাই এর বউদিমনি তোর্ষা পর্যন্ত মিঠাই এর জন্য কেঁদে ফেলে মিঠাই এর সাথে তোর্ষার সর্ম্পক টক-ঝাল এর। কিন্তু এদিন দেখা গেল মিষ্টি একটা সম্পর্ক। এই একটা সিন এর জন্য টি আর পি বেড়ে গেছে মিঠাই এর। যদিও হাসপাতালে গান করা নিয়ে ট্রোল করা হয়েছে এই সিরিয়াল কে। কিন্তু অপরদিকে অনেকেই সাপোর্ট করছে এই দৃশ্যটিকে। কিন্তু বর্তমানে কোমায় রয়েছে মিঠাই। কবে তার জ্ঞান ফিরবে তার কোন ঠিক নেই। যা দেখে হতাশ দর্শকেরা। সময়ের সাথে সাথে জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছেছে “মিঠাই” ধারাবাহিক। আর পাশাপাশি দর্শকদের ক্রমাগত ভালোবাসা পেয়ে চলেছেন সৌমিতৃষা। সম্প্রতি কোমায় চলে গিয়েছিল মিঠাই।

বর্তমানে আবার জ্ঞান ফিরে এসেছে তার। এই নিয়েই এখন মাতোয়ারা মিঠাই পরিবার। এই বিখ্যাত ধারাবাহিক অভিনেত্রী সৌমিতৃষা -র বেশকিছু ফ্যান পেজ আছে। সেইসব ফ্যান পেজ থেকে পোস্ট করা বিভিন্ন ছবি ভিডিও অভিনেত্রীর ভালো লাগলে নিজের অফিশিয়াল একাউন্ট থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে থাকেন। পাশাপাশি দেন ভালো ভালো ক্যাপশন। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের একটি পুরনো ছবি আপলোড করেছেন অভিনেত্রী। সাথে দিয়েছেন একটি গভীর ক্যাপশন। সেই ক্যাপশন কাউকে ডেডিকেট করে দিয়েছেন কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন জাগছে তার ফলোয়ার্স এর মনে।

মূলত শাড়ি পরেই দেখা যায় এই অভিনেত্রীকে। মাঝে মাঝে অবশ্য ওয়েস্টার্ন ড্রেস পরেও সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ছবি আপলোড করেন তিনি। তবে তা সংখ্যায় খুবই নগণ্য। সম্প্রতি সৌমিতৃষা কুণ্ড দিওয়ালি (Diwali) লুক ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়। এদিন তার পরনে ছিল লাল রংয়ের শাড়ি আর সবুজ রঙের সরু স্ট্র্যাপের ব্লাউজ। খোঁপায় ছিল লাল ফুল আর গলায় ছিল জড়োয়ার হার। শুটিং না থাকলে সৌমিতৃষা (Soumitrisha) পরিবারের সাথে সময় কাটান। দীপাবলি উপলক্ষে মায়ের সাথে ম্যাচিং করে সেজে তিনি ঘুরতে বেরিয়েছিলেন ।পাশাপাশি একটি পূজা মন্ডপ উদ্বোধন করেছিলেন।