Emraan Hashmi: জনপ্রিয় নায়িকাদের মুখে দুর্গন্ধ, চুম্বন দৃশ্য করতে গিয়ে ঝামেলা পোহিয়েছেন ইমরান হাশমি, অবশেষে করলেন খোলসা !!

বলিউডের সিরিয়াল কিসার হলেন ইমরান হাসমি (Emraan Hashmi)। নব্বইয়ের দশকে তার ফিল্ম বাবা-মায়ের সামনে দেখতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করত না ছেলে-মেয়েরা। অবশ্য মা-বাবারাও ইমরান হাসমির ফিল্ম সজ্ঞানে কখনও সন্তানদের দেখতে দেননি। এহেন ইমরান হাসমিকে বর্তমান সময়ে ফিল্মি জগতে খুব একটা দেখা যাচ্ছে না।

তৎকালীন সময়ে ইমরান হাসমি (Emraan Hashmi) প্রায় সব হিরোইনকেই অন-স্ক্রিন কিস্ করেছিলেন। কিসিং সিনের জন্য পরিচালকদের প্রথম পছন্দ সেই সময় ইমরান হাসমি ছিলেন। তবে পর্দায় যেই চরিত্রেই অভিনয় করেননি কেন, ব্যক্তিগত জীবনে কোনো নায়িকার সাথে লিঙ্ক আপ করা হয়নি তাকে। এই পর্যন্ত কোনো নায়িকার সাথে তার অ্যাফেয়ারের খবরও আসেনি। তিনি নিজের স্কুল লাইফের প্রেমিকাকেই বিয়ে করেছিলেন।

Emraan Hashmi
Emraan Hashmi

“মার্ডার” ফিল্মে মল্লিকা সেরাওয়াত ও ইমরান হাসমির (Emraan Hashmi) কিসিং সিন দর্শকদের খুব পছন্দ হয়েছিল সেই সময়। ইমরান হাসমিও মল্লিকা সেরাওয়াত -কে তার বেস্ট কিসিং পার্টনার বলেছেন। এহেন ইমরান হাসমিকে একবার কিসিং সিন করার সময় অস্বস্তিকর অবস্থায় পড়তে হয়েছিল।

তাকে একটি ইন্টারভিউতে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল তার কিসিং সিন করতে কখনও অস্বস্তি হয়েছিল কিনা। সেই প্রসঙ্গে তিনি জানান যেকোনো অভিনয়ই হিরো ও হিরোইনের পার্টনারশিপে হয়। তার হিরোইনরা তাকে সব সিনে হেল্প করায় কখনও তাকে অস্বস্তি বোধ করতে হয়নি। তবে কোনো নায়িকার নাম না করে তিনি জানান যে একবার একটি ফিল্মে কিসিং সিনে তার হিরোইনের মুখে খুবই বাজে গন্ধ ছিল, তাই তাকে অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছিল। ক্যামেরা চালু হয়ে যাওয়ায় তাকে বাধ্য হয়ে কিসিং সিন চালু রাখতে হয়। এটিই তার কেরিয়ারের সবথেকে অস্বস্তিকর কিসিং সিন ছিল।

এর থেকেও বেশি অস্বস্তিকর কিসিং সিন ছিল বিদ্যা বালানের সাথে। 2013 সালে নির্মিত ফিল্ম “ঘনচক্কর” এর একটি দৃশ্যে বিদ্যা বালান্ কে লিপ লক্ কিস করতে গিয়ে ঘাবড়ে গিয়েছিলেন ইমরান হাসমি, ভয়ও পেয়েছিলেন খুব। এই কারণে রাতে ঘুম হয়নি তাঁর। বিদ্যা বালান্ পরে একটি ইন্টারভিউতে এই ঘটনার উল্লেখ করে জানান যে সিদ্ধার্থ রায় কাপুরের সাথে বিয়ে হওয়ার পর এই সিন শ্যুট হয়েছিল। তাই একটু চিন্তায় ছিলেন ইমরান (Emraan Hashmi)।

আরও পড়ুন – বেডরুমে বাবা শাহরুখ এবং মা গৌরীকে এই অবস্থা দেখে ফেলে তাদের মেয়ে সুহানা! এই কান্ড দেখে পায়ের নিচের মাটি সরে গিয়েছিল সুহানার