হ্যান্ডসাম ইউটিউবারের বাইকে বসে পুরো রোমান্টিক মুডে রানাঘাটের রানু মন্ডল, নেটদুনিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল

রানু মন্ডল এবারে ধরা দিলেন এক যুবকের বাইকে বাসে। তাও আবার রোম্যান্টিক মুডে! এক যুবকের বাইকে বসে হিন্দি গানের তালে পা ও মাথা দোলাচ্ছেন। চেনা রূপের বাইরে অন্যরকমভাবে ধরা দিয়েছেন তিনি। সেই রানু মন্ডল, যিনি কিনা স্টেশনে বসে ভিক্ষাবৃত্তি দ্বারা জীবনযাপন করতেন,তিনিই একদিন মুম্বাইয়ে হিমেশ রেসমির সুর করা গান গেয়ে বিখ্যাত হলেন। আসলে ভাগ্য মানুষকে সাফল্যের পর্বতের শিখরেও নিয়ে যেতে পারে। এই ভাগ্যের জোরেই অতি সামান্য রানু মন্ডল হয়ে উঠেছেন গায়িকা রানু মন্ডল।

Ranu Di 2, হ্যান্ডসাম ইউটিউবারের বাইকে বসে পুরো রোমান্টিক মুডে রানাঘাটের রানু মন্ডল নেটদুনিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল, হ্যান্ডসাম ইউটিউবারের বাইকে বসে পুরো রোমান্টিক মুডে রানাঘাটের রানু মন্ডল, নেটদুনিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল

এই স্যোশাল মিডিয়া তাঁর জনপ্রিয়তা লাভে অনেক সাহায্য করেছে। তাঁর গাওয়া একটি গান শুনে অতীন্দ্র চক্রবর্তী নামক এক ব্যক্তি ফেসবুকে তা ভাইরাল করেন। গানটি ছিল-” এক পেয়ার কা নাগমা হে।” হু হু করে ছড়িয়ে পড়ে ভিডিওটি। এরপর মুম্বাই গিয়ে হিমেশ রেশমির গানের রেকর্ড করেন। তবে সময়ের স্রোতে অনেক কিছু হারিয়ে যায়। তেমনই রানু মন্ডলও হারিয়ে গেছিলেন। তাঁর কু-মন্তব্য তাঁকে জনপ্রিয়তার শিখর থেকে মাটিতে নামিয়ে আনে। এমনকি অতীন্দ্র চক্রবর্তীকে “ভগবানের চাকর” বলেছিলেন। এরপর থেকেই নানারকম বিতর্কিত এবং অদ্ভুত মন্তব্যের জন্য রানু মন্ডলের খ্যাতি কমতে থাকে।

Ranu Di, হ্যান্ডসাম ইউটিউবারের বাইকে বসে পুরো রোমান্টিক মুডে রানাঘাটের রানু মন্ডল নেটদুনিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল, হ্যান্ডসাম ইউটিউবারের বাইকে বসে পুরো রোমান্টিক মুডে রানাঘাটের রানু মন্ডল, নেটদুনিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল

তবে স্যোশাল মিডিয়ায় মাঝে মাঝেই রানু মন্ডলকে নিয়ে নানা ধরনের ভিডিও ভাইরাল হয় স্যোশাল মিডিয়ায়। রানু মন্ডলকে নিয়ে নানা ধরনের মজার ভিডিও, মিমও পোস্ট করা হয় স্যোশাল মিডিয়ায়। সম্প্রতি রানু মন্ডল ধরা দিয়েছেন রোম্যান্টিক মুডে। ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওতে দেখা গেছে রানু মন্ডল কটি যুবকের বাইকের পিছনে বসে আসেন। আর ভিডিওর ব্যাকগ্রাউন্ডে বাজছে জনপ্রিয় হিন্দি গান “চোরি চোরি চুপকে চুপকে”। রানুর পরনে রয়েছে সাদা ডট দেওয়া নীল রঙের নাইটি।

এই ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে ‘Justin Imran’ নামের একটি ইউটিউব (Youtube) চ্যানেল থেকে। এই ভিডিওটি দেখে নেটিজনরা বিভিন্ন ধরনের বক্তব্য করেছেন। ঘটনাটিকে ‘পাগলের যত পাগলামি’ বলে উল্লেখ করেছেন অনেকেই। আর সবচেয়ে অবাক করা বিষয় হল ভিডিওটি ৩ মাস আগে আপলোড করা। এর মধ্যেই এই ভিডিও দেখে ফেলেছেন ২০ লাখ দর্শক।

Leave a Comment