এইভাবে চটপট বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের ‘মালাই চিংড়ি’, একবার খেলে বারবার খেতে ইচ্ছে করবে

আমরা সবাই খেতে খুব ভালোবাসি। আমরা যেখানেই যাক না কেন ভালো খাবার আমাদের চাই। আর মাছ তো খুব পছন্দের সবার। সকলের অত্যন্ত প্রিয় মাছ চিংড়ি মাছ। এই বর্ষার সময় বাজারে প্রচুর গলদা চিংড়ি মাছ পাওয়া যায় আর এইসময় দামও একটু কম থাকে। তাই খুব বিক্রি হয় চিংড়ি মাছ।

এমনি চিংড়ির ঝোল বা নারকেল চিংড়ি তো সবাই খান। তবে আপনাদের জন্য রইলো এমন একটি রেসিপি যা আপনারা আগে কখনো খাননি। আপনাদের জন্য রইল মালাই চিংড়ির দূর্দান্ত একটি রেসিপি।

উপকরণ: চিংড়ি ৪০০ গ্রাম, পেঁয়াজ, আদা, টমেটো ১ টি, গোটা জিরে, জিরেগুঁড়ো, গোটা গরমমসলা ১ চামচ গরমমসলা গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, কাশ্মিরি লঙ্কার গুঁড়ো, লঙ্কা, তেজপাতা ২ টি, দুধের মালাই, সর্ষের তেল, ঘি, চিনি নুন

প্রণালী: প্রথমে চিংড়ি মাছগুলোকে খুব ভালো করে ধুয়ে তাতে নুন ও হলুদ মাখিয়ে নিন। এবারে কড়াইয়ে ভেজে নিন এই মাছগুলো। এরপর মিক্সিতে বা শিলনোড়াতে ১ টা পেঁয়াজ, ৪-৫ টা লঙ্কা, ১/২ ইঞ্চি মতো আদা একসাথে বেটে নিন। এরপর আলাদা করে টমেটো বেটে নিন। এবার কড়াইতে সর্ষে তেল দিয়ে তেজপাতা, গোটা গরমমসলা, গোটা জিরে ফোড়ন দিন। এবারে মশলাগুলো ভালভাবে ভাজুন।

এবারে এই মশলার মধ্যে দিয়ে দিন অল্প হলুদগুঁড়ো, ১ চামচ জিরেগুঁড়ো, ১-১/২ চামচ কাশ্মিরী লঙ্কাগুঁড়ো। এবারে কিছুক্ষণ মশলা কষিয়ে এতে যোগ করুন টমেটো বাটা, নুন এবং চিনি। পুনরায় কষিয়ে নিন। মশলা কষানো হয়ে গেলে ১ কাপ দুধের মালাই বা ফ্রেশ ক্রিম দিয়ে ঢাকা দিয়ে দিয়ে রান্না করুন।

যখন দেখবেন তেল ছাড়তে শুরু করেছে মশলা থেকে, তখন এর মধ্যে গোটা গরম জল ও গরমমসলা গুঁড়ো দিন। এরপর এর মধ্যে ভেজে রাখা চিংড়ি মাছ দিন। ঢাকা দিয়ে রেখে দিন ৫ মিনিটের জন্য। শেষে কাঁচালঙ্কা দিয়ে ৪-৫ মিনিট রান্না করুন। সবশেষে ঘি দলেই তৈরি মালাই চিংড়।

এই রেসিপি পুরোপুরি আলাদা রকমের একটি রেসিপি। এই রান্না একেবারে মুখে লেগে থাকবে সকলের।

Leave a Comment