এইভাবে মুগ ডাল দিয়ে বরবটির তরকারি বানালে স্বাদ হবে দুর্দান্ত, চেয়ে চেয়ে খাবে বাচ্চা থেকে বুড়ো

রান্না করতে অনেকেই ভীষন ভালোবাসেন। তবে একঘেয়ে রান্নার বদলে অনেকেই চান নতুন ধরনের কোনো রান্না করতে। বর্তমানে বাড়ির বেশিরভাগ মানুষই বিভিন্ন ধরনের সবজি খেতে পছন্দ করেন না। অনেকেই বরবটি খেতে একেবারেই পছন্দ করেন না। তবে বরবটি ও মুগ ডালের একেবারে অন্যরকম একটি রেসিপি রয়েছে। এটি যদি আপনি ট্রাই করেন তবে বুঝবেন এটি খেতে হয় দুর্দান্ত।

এই রান্নাটির উপকরণ হিসেবে লাগবে আলু (Potato), বরবটি, মুগ ডাল, পাঁচফোড়ন, শুকনো লঙ্কা, টমেটো (Tomato), জিরেগুঁড়ো (Cumin Powder) , ধনে গুঁড়ো (Coriander powder) , শুকনো লঙ্কাগুঁড়ো , কাশ্মীরে শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো, গরম মসলা গুঁড়ো, আদা (Ginger) , নুন (Salt) , চিনি (Sugar) , সরষের তেল (Mustard oil) ও ঘি।

প্রথমে বরবটি ও আলু গুলোকে ধুয়ে নিতে হবে। এবার মুগডাল হালকা করে ভেজে নিয়ে জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে। এরপর করাইতে কিছুটা সরষের তেল গরম করে তাতে আলু আর বরবটি গুলো দিয়ে ভেজে নিতে হবে। আলু বরবটি ভাজা হয়ে গেলে সেটাকে নামিয়ে নিতে হবে। এরপর কড়াইতে কিছুটা তেল দিয়ে তার মধ্যে দিয়ে দিতে হবে পাঁচফোড়ন, শুকনো লঙ্কা ও তেজপাতা। এরপরে গ্রেট করা আদা ও টমেটো কুচি দিয়ে ভালোভাবে নাড়াচাড়া করে নিতে হবে। এরপর এর মধ্যে একে একে দিয়ে দিতে হবে হলুদ গুড়ো, জিরেগুঁড়ো, ধনেগুঁড়ো, লঙ্কাগুঁড়ো ও কাশ্মীরি লঙ্কাগুলো। এবারে ভালো করে মশলা কষিয়ে নিতে হবে।

মশলা কষানো হয়ে গেলে ভিজিয়ে রাখা মুগ ডাল কড়াইতে দিয়ে ভালোভাবে নাড়াচাড়া করতে হবে। এরপর এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে উষ্ণ গরম জল। উষ্ণ গরম জল দিয়ে কড়াইতে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। ডাল সেদ্ধ না হওয়া পর্যন্ত রান্না করতে হবে মুগ ডালটি সেদ্ধ হয়ে গেলে কড়াইতে আলু, বরবটি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে দিতে হবে ।এরপরে জল শুকিয়ে গেলে এর মধ্যে দিতে হবে ঘি, চিনি ও সামান্য পরিমাণ গরম মসলা গুঁড়ো। তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে মুগ ডাল দিয়ে আলু ও বরবটির এই তরকারি। যা স্বাদে হয় দুর্দান্ত।

Leave a Comment