বাবার সঙ্গে চা বিক্রি করতেন, রেলের Free WiFi থেকে পড়াশোনা করে পুলিশ অফিসার এই যুবক

কারো কারো জীবনে ছোট থেকেই প্রতিকূল অবস্থার সাথে লড়াই করে বাঁচতে হয়। আর যখন সেই প্রতিকূল পরিস্থিতির সাথে লড়াই করে সফল হতে দেখা যায় সেই মানুষটাকে তখন আমরাও বিভিন্ন কাজে লড়াই করার অনুপ্রেরণা পাই। প্রত্যেকের জীবনেই তো কিছু না কিছু সমস্যা থাকে সেই সমস্যার সমাধানের জন্য নতুন করে লড়াই করার শক্তি পাই আমরা।

Bg Copy33 1, বাবার সঙ্গে চা বিক্রি করতেন, রেলের Free Wifi থেকে পড়াশোনা করে পুলিশ অফিসার এই যুবক, বাবার সঙ্গে চা বিক্রি করতেন, রেলের Free Wifi থেকে পড়াশোনা করে পুলিশ অফিসার এই যুবক

ঠিক এভাবেই লড়াই করে নিজের জীবনকে আজকে সঠিক রাস্তায় দাঁড় করিয়েছেন বিহারের বাসিন্দা সক্রেটিস সিং। ২০০৭ সালে এই সক্রেটিস সিং এর জীবনে এক বিপর্যয় নেমে আসে। সে সময়ে বন্যায় তার বাড়ি ঘর সব ধ্বংস হয়ে গেলেও হাল ছাড়েননি তিনি। এই সময় বিহারের কাটিহারের একটি রেলস্টেশনে বাবার সঙ্গে চা বিক্রেতার কাজ করেতেন তিনি।

Bg Copy34 1, বাবার সঙ্গে চা বিক্রি করতেন, রেলের Free Wifi থেকে পড়াশোনা করে পুলিশ অফিসার এই যুবক, বাবার সঙ্গে চা বিক্রি করতেন, রেলের Free Wifi থেকে পড়াশোনা করে পুলিশ অফিসার এই যুবক

তবে এখন এই চাওয়ালার ছেলে জায়গা করে নিয়েছেন বিহার পুলিশে। সারাদিন বাবার সাথে পরিশ্রম করলেও রাতে বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার জন্য পড়াশোনা করতেন তিনি। তার এই নিঃস্বার্থ চেষ্টা আজ তাকে দাঁড় করিয়েছে বিহারের পুলিশ এ। সাব-ইন্সপেক্টর হিসেবে কাজ শুরু করে আজ তিনি ইন্সপেক্টর হয়েছেন। তবে এর পিছনে ছিল তার কঠোর পরিশ্রম।

তিনি বলেন ২০১৮ সালে তিনি এসআই পরীক্ষা দিয়ে তাতে পাস করলেও মেডিকেল ফিটনেস এর জন্য আটকে গিয়েছিল তার স্বপ্ন। তারপর হাল না ছেড়ে লড়াই চালিয়ে গিয়ে আবারো সেই পরীক্ষা দিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন। এই কাহিনীটি প্রত্যেক মানুষের কাছে লড়াই করার একটা শক্তি।

Leave a Comment