মাত্র ৮০ টাকা ঋণ নিয়ে নেমেছিলেন ব্যাবসায়, আজ দাঁড় করিয়েছেন ১৬০০ কোটি টাকার সাম্রাজ্য

লিজ্জত ( Lijjat) পাপড় এর নাম অনেকেই শুনেছেন। তবে এই পাপড় তৈরির পেছনে কি ইতিহাস রয়েছে সেটি হয়তো অনেকেই জানেন না। বাড়ির কিছু সাধারন গৃহিণীদের উত্থানের কাহিনী রয়েছে এই পাপড় তৈরির পেছনে। কিছু টাকা ঋণ নিয়ে তারা শুরু করেছিলেন এই পাপরের ব্যবসা তারপরে বর্তমানে তাদের সম্পত্তির পরিমান 1600 কোটি টাকা।

Lijjat, মাত্র ৮০ টাকা ঋণ নিয়ে নেমেছিলেন ব্যাবসায় আজ দাঁড় করিয়েছেন ১৬০০ কোটি টাকার সাম্রাজ্য, মাত্র ৮০ টাকা ঋণ নিয়ে নেমেছিলেন ব্যাবসায়, আজ দাঁড় করিয়েছেন ১৬০০ কোটি টাকার সাম্রাজ্য

জানা যায় কাপড়ের ব্যবসা শুরু করেছিলেন যসন্তিবেন যমুনাদাস পোপাট (Jashwantiben Jamunadas Popat) তার সঙ্গী হয়েছিলেন রামদাস ঠোবানি (Ramdas Thobani), পার্বতীবেন (Parvatiben), নারায়ণদাস কুড্ডুলিয়া (Narayandas Kuddulia)  প্রমূখ । 1959 সালের 15 ই মার্চ এই পাপড়ের ব্যবসা শুরু করেন তারা।

Lijjat3, মাত্র ৮০ টাকা ঋণ নিয়ে নেমেছিলেন ব্যাবসায় আজ দাঁড় করিয়েছেন ১৬০০ কোটি টাকার সাম্রাজ্য, মাত্র ৮০ টাকা ঋণ নিয়ে নেমেছিলেন ব্যাবসায়, আজ দাঁড় করিয়েছেন ১৬০০ কোটি টাকার সাম্রাজ্য

জানা যায় যে বাড়ির কাজ সামলে তারা এই ব্যবসা করতেন । ভোর সাড়ে চারটায় উঠে তারা সব সামলে ব্যবসার কাজ শুরু করতেন । প্রথমে তারা নিজেদের কাছাকাছি এলাকায় এই পাঁপড় বিক্রি করা শুরু করেন। কিন্তু এই পাপড়ের স্বাদ হয় অসাধারণ । তাই এই লিজ্জত পাপর একটি ব্র্যান্ড হয়ে ওঠে। এরপরে যখন তারা লাভ করে তখন সেই লাভের টাকা নিজেদের মধ্যে সমানভাবে তারা ভাগ করে নেন।

Lijjat1, মাত্র ৮০ টাকা ঋণ নিয়ে নেমেছিলেন ব্যাবসায় আজ দাঁড় করিয়েছেন ১৬০০ কোটি টাকার সাম্রাজ্য, মাত্র ৮০ টাকা ঋণ নিয়ে নেমেছিলেন ব্যাবসায়, আজ দাঁড় করিয়েছেন ১৬০০ কোটি টাকার সাম্রাজ্য

লিজ্জত শব্দের অর্থ হলো সুস্বা। মাত্র 6 জন মিলে তারা এই ব্যবসা শুরু করেছিলেন । বর্তমানে এই ব্যবসা 63 টি কেন্দ্র ও চল্লিশটি মন্ডলে বিস্তার করেছে । খুবই অল্প পুঁজি নিয়ে ব্যবসা করা শুরু করেছিলেন তার। এই ব্যবসার জন্য তারা পদ্মশ্রী পুরস্কার ও পান।

Leave a Comment