কর্মচারীর কাজে খুশি হয়ে ২২ তল বাড়ি উপহার দিলেন মুকেশ আম্বানি, দাম শুনলে কপালে উঠবে চোখ

মুকেশ আম্বানির বিলাসবহুল জীবন যাপনের ব্যাপারে তো সকলেই জানেন। তার এই বিলাসবহুল জীবন যাপনের জলজ্যান্ত উদাহরণ হল এন্টিলিয়া বিল্ডিং। এই বিল্ডিংটি বিশ্বের বিখ্যাত ব্যয়বহুল বিল্ডিংগুলির মধ্যে একটি। মুকেশ আম্বানির কেবল ভারতেই নয়, ভারতের বাইরেও ব্যয়বহুল বাঙলো রয়েছে।

তার এই ব্যয়বহুল বাংলোর তালিকায় সম্প্রতি যুক্ত হয়েছে আরেকটি নাম। সংযুক্ত আরব আমিরাতে এই ভিলাটি কিনেছেন মুকেশ আম্বানির ছেলে অনন্ত আম্বানি। বর্তমানে এই নিয়েই দেশজুড়ে চলছে জোরকদমে চর্চা। চলতি বছরের শুরুতেই দুবাইয়ের পাম জুমেইরাহ বিচে 640 কোটি টাকার একটি ভিলা কিনেছেন অনন্ত আম্বানি।

এই বিলাসবহুল বাড়িটি মধ্যে রয়েছে 10 টি বেড রুম, একটি স্পা ও দুটি সুইমিংপুল। একটি সুইমিং পুল রয়েছে খোলা আকাশের নিচে এবং অপরটি রয়েছে বন্ধ জায়গায়। 2001 সালে পাম জুমেইরাহ দ্বীপপুঞ্জের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছিল। 2007 সাল থেকে এই অঞ্চলে জনবসতি গড়ে ওঠে। সমুদ্রের মাঝখানে নির্মিত এই দ্বীপে রয়েছে বিলাসবহুল হোটেল, বিলাসবহুল ক্লাব, বিলাসবহুল স্পা, বিলাসবহুল রেস্টুরেন্ট এবং বিভিন্ন বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্ট।

প্রসঙ্গত বলে রাখি 2021 সালে ইংল্যান্ডে একটি বিলাসবহুল প্রাসাদে কিনেছেন মুকেশ আম্বানি। মুকেশ আম্বানি তার বড় ছেলে আকাশ আম্বানির জন্য জর্জিয়ান যুগের এই প্রাসাদটি কিনেছিলেন। সম্প্রতি মুকেশ কন্যা ঈশাও নিউ ইয়র্কে একটি বাড়ি কেনার পরিকল্পনা করছেন।

ধনী ব্যক্তিদের উপহারই এমন হয় যে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তার মূল্য কোটি টাকার বেশি হয়। সম্প্রতি তিনি মুম্বাইতে 22 তলা একটি বিলাসবহুল বাড়ি নির্মাণ করিয়েছেন। যার মূল্য বর্তমানে দেড় হাজার কোটি টাকারও বেশি। এই বাড়িটির নাম দেওয়া হয়েছে বৃন্দাবন। এই বিলাসবহুল বাড়ির প্রতিটি ফ্লোর 4 হাজার বর্গফুটের এবং সমগ্র বাঙলোটি 1.7 লক্ষ বর্গ ফুটের বেশি জায়গা জুড়ে রয়েছে। এই বাঙলোটি তৈরি করেছে “লিটন ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি”। আর নিচের অংশটি তৈরি করেছে “তালাটি এন্ড পার্টনার্স এলএলপি” কম্পানি। বাড়িটির সমস্ত আসবাবপত্র আনা হয়েছে ইতালি থেকে।

22 তলা এই বাঙলোটির 8 নম্বর, 9 নম্বর ও 10 নম্বর তলাগুলি রাখা হয়েছে বিনোদনের জন্য। এই তলাগুলোতে রয়েছে পার্টি রুম, স্পা, প্লে এরিয়া ও থিয়েটার। এই বাংলোটির টেরিসে রয়েছে একটি সুইমিং পুল। এই বাংলোটি মুকেশ আম্বানি ও নিতা আম্বানি মনোজ মোদিকে উপহার দিয়েছেন। মনোজ মোদিকে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রির চাণক্য বলা হয়। জানা যাচ্ছে বৃন্দাবন বাংলোটি -কে সুরক্ষিত রাখার জন্য হাইটেক নিরাপত্তাব্যবস্থা মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave a Comment