বাংলা চলচ্চিত্র জগতের অতি পরিচিত অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র যে ভীষণ স্পষ্টবাদী, তার প্রমাণ এর আগে বহুবার পাওয়া গেছে। শ্রীলেখা মিত্রকে বরাবরই দেখা গেছে তিনি খুব স্পষ্ট করে যেকোনো উত্তর দেন। সেটা স্যোশাল মিডিয়া হোক বা সাংবাদিকদের সামনে। এবারে নিজের জন্মদিনে মদ্যপান প্রসঙ্গে মুখ খুললেন শ্রীলেখা মিত্র। শ্রীলেখা মিত্রের ৫০ বছরের জন্মদিন ছিল কয়েকদিন আগে। জন্মদিনের দিন তিনি বন্ধুদের সাথে কেক, বেলুন এবং ড্রিঙ্কস সহযোগে পার্টি করেন। সেখানে বাংলা ইন্ডাস্ট্রির চেনা মুখেদের দেখাও মিলেছিল।

 

Bg Copy54, ‘নিজের বাড়িতে নিজের পয়সায় খেয়েছি বেশ করেছি’ জন্মদিনে মদ্যপান নিয়ে মুখ খুললেন শ্রীলেখা,

শ্রীলেখা মিত্র তাঁর জন্মদিনের উৎযাপনের সমস্ত আপডেট দিয়েছেন স্যোশাল মিডিয়ায়। শ্রীলেখা মিত্রের পোস্ট করা ভিডিওতে দেখা গেছে তিনি বাকি বন্ধু-বান্ধবীদের সাথে মদ্যপান করছেন। সেখানে তাঁর মেয়েও উপস্থিত ছিল। এমনকি তিনি মেয়ের সাথে ‘উ আনটাভা’ গানে নাচও করেন। কিন্তু শ্রীলেখার মদ্যপানের ভিডিওটি সহজভাবে নেননি নেটিজনদের একাংশ। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকে নেটিজনরা বিভিন্ন কু-মন্তব্য করেন তাঁর মদ্যপান নিয়ে।

 

Bg Copy53, ‘নিজের বাড়িতে নিজের পয়সায় খেয়েছি বেশ করেছি’ জন্মদিনে মদ্যপান নিয়ে মুখ খুললেন শ্রীলেখা,

তিনি এই প্রসঙ্গে ফেসবুকে নেটিজনদের জবাব দিয়েছেন। তিনি লিখেছেন “আমার টাকিলা শটস খাওয়ার ভিডিও তৃণমূলের ছানাপোনারা ভাইরাল করেছে। বেচারাদের চুরির পয়সা, সস্তা বাংলা খেতে হয় বলে খুব কষ্ট পেয়েছে আমার দামি মদ খাওয়া দেখে। আহারে! নিজের বাড়িতে নিজের পয়সায় নিজের জন্মদিনে খেয়েছি, বেশ করেছি।”

এছাড়াও তিনি ৫০ বছরের বেলুন নিয়ে জন্মদিন উদযাপনের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে জানিয়েছেন, তাঁকে নিয়ে শেমিং করলেও তাঁর কিছু যায় আসে না। এছাড়াও তিনি মেয়ের প্রসঙ্গে বলেছেন, “আমার মেয়েকে যতগুলো ছেলে দেখবে তার থেকে একটা হলেও বেশি ছেলে আমায় দেখবে।” তিনি মনে করেন মনের বয়স বাড়ে না, বয়স শুধু সংখ্যামাত্র।

Leave a Comment