Tata Nano: নতুন অবতারে প্রত্যাবর্তন Tata Nano-র, চোখ ধাঁধানো বৈশিষ্ট্য ঘুম উড়িয়েছে মারুতি, অল্টোর

ভারতের বিখ্যাত ব্যবসায়ী তথা বর্তমানে দেশের ইয়ুথ দের অন্যতম আইকন রতন টাটার স্বপ্ন অবশেষে ভারতের মাটিতে পূরণ হতে চলেছে।রতন টাটার স্বপ্নের গাড়ি TATA Nano,একথা প্রায় সকলেই জানেন।এই গাড়িই আবার আসতে চলেছে বাজারে।যদিও নতুন গাড়িটি ডিজেল নয় বরং নতুন ইলেকট্রিক গাড়ি হিসাবে বাজারে আনতে চলেছে ভারতের এই গাড়ি নির্মাণ কোম্পানিটি। বর্তমানে মধ্যবিত্তের ঘুম ওড়াচ্ছে তেলের মূল্যবৃদ্ধি। সারা জীবনের সঞ্চয় দিয়ে একটি গাড়ির শখ পূরণ করলেও তেলের উর্ধ্বমূল্যের কারণে বেশিরভাগ গাড়ি প্রেমিরা গাড়ি চালাতে ভয় পাচ্ছেন। এমন পরিস্থিতিতে সবচেয়ে কম মূল্যে দুর্দান্ত বৈশিষ্ট্যের ইলেকট্রিক গাড়ি বাজারে আনার পুরো পরিকল্পনা সেরে ফেলেছে এই গাড়ি নির্মাণ কোম্পানিটি।

Image 11, Tata Nano: নতুন অবতারে প্রত্যাবর্তন Tata Nano-র চোখ ধাঁধানো বৈশিষ্ট্য ঘুম উড়িয়েছে মারুতি অল্টোর, Tata Nano: নতুন অবতারে প্রত্যাবর্তন Tata Nano-র, চোখ ধাঁধানো বৈশিষ্ট্য ঘুম উড়িয়েছে মারুতি, অল্টোর

সম্প্রতি সংস্থার পক্ষ থেকে জানা গিয়েছে রতন টাটার স্বপ্নের গাড়ি TATA Nano এবার অন্যরূপে বাজারে আসতে চলেছে। মধ্যবিত্তের কথা ভেবে কোম্পানির তরফ থেকে বলা হচ্ছে, এটাই হবে ভারতীয় বাজারে সবচেয়ে সস্তার ইলেকট্রিক গাড়ি। নতুন গাড়িটির নাম একই হলেও এবার এই গাড়ির লুকিংয়ে বড়ো সরো পরিবর্তন এনেছে টাটা। সংস্থার পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে এই গাড়ি একটি প্রিমিয়াম গাড়ির অনুভব দেবে।।

কোম্পানি এই গাড়িটির বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে যা জানিয়েছে তা হল, Tata Nano EV ইলেকট্রিক গাড়িটিতে পাওয়ার স্টিয়ারিং, এসি, ফ্রন্ট পাওয়ার উইন্ডোজ, ব্লুটুথ, মাল্টি-ইনফরমেশন ডিসপ্লে, রিমোট লকিং সিস্টেম, অ্যান্ড্রয়েড অটো এবং অ্যাপল কারপ্লে সংযোগ সহ 7-ইঞ্চি টাচস্ক্রিন ব্যবহার করা হয়েছে। একই সাথে ইনফোটেইনমেন্ট সিস্টেম, ব্লুটুথ এবং ইন্টারনেট সংযোগের মত দুর্দান্ত সুবিধা রেখেছে গাড়ি নির্মাণ কারী সংস্থাটি।কোম্পানির তরফে আরও জানানো হয়েছে, গাড়িতে দুটি ব্যাটারি প্যাকের বিকল্প পেতে পারেন গ্রাহকরা।

Image 12, Tata Nano: নতুন অবতারে প্রত্যাবর্তন Tata Nano-র চোখ ধাঁধানো বৈশিষ্ট্য ঘুম উড়িয়েছে মারুতি অল্টোর, Tata Nano: নতুন অবতারে প্রত্যাবর্তন Tata Nano-র, চোখ ধাঁধানো বৈশিষ্ট্য ঘুম উড়িয়েছে মারুতি, অল্টোর

যার মধ্যে প্রথমটি একটি ১৯ kwh ব্যাটারির প্যাক যা একবার সম্পূর্ণ চার্জে ২৫০ কিলোমিটারের পর্যন্ত মাইলেজ দিতে সক্ষম। এর দ্বিতীয় ব্যাটারি প্যাক সম্পর্কে যদি বলি, এটি একটি ২৪ kwh ব্যাটারি প্যাক, যা একবার সম্পূর্ণ চার্জ হয়ে গেলে, আপনি ৩১৫ কিলোমিটারের ড্রাইভ রেঞ্জ পাবেন। Tata Nano গাড়িটি ভারতের বাজারে আপনি ৩ লাখেরও কম মূল্যে কিনতে পারবেন বলে জানা যাচ্ছে,যা গাড়িটির অন্যতম বৈশিষ্ট্য হিসাবেও বলা যেতে পারে।