এক সময় কাপড়ের কারখানায় কাজ করতেন ১ হাজার টাকা, আজ হয়েছেন ১৮০ কোটি টাকার মালিক!

সূরিয়া দক্ষিণী চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় মুখ। তিনি দর্শকদের বহু জনপ্রিয় ফিল্ম উপহার দিয়েছেন। তবে তাঁর স্ট্রাগলের গল্প ক’জন জানে? জন্মসূত্রে তিনি শিবকুমারের ছেলে, যিনি একজন নামকরা দক্ষিণী অভিনেতা। তবে সুরিয়া কঠোর পরিশ্রমের দ্বারা নিজস্ব পরিচয় তৈরি করেছেন।

Bg Copy59, এক সময় কাপড়ের কারখানায় কাজ করতেন ১ হাজার টাকা আজ হয়েছেন ১৮০ কোটি টাকার মালিক!, এক সময় কাপড়ের কারখানায় কাজ করতেন ১ হাজার টাকা, আজ হয়েছেন ১৮০ কোটি টাকার মালিক!

সুরিয়া প্রথমদিকে নিজের পরিচয় গোপন রেখে একটি পোশাক তৈরির কারখানায় কাজ করতেন। সেখানে তিনি প্রায় ৮ মাস কাজ করেছেন। প্রতিমাসে বেতন পেতেন ১ হাজার টাকা পেতেন সুরিয়া। তিনি প্রথম ২০ বছর বয়সে সিনেমাতে কাজ করার প্রস্তাব পান। ১৯৯৫ সালে তাঁকে ‘আসাই’ ছবিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয়। কিন্তু সিনেমার প্রতি আগ্রহ না থাকায় তিনি প্রস্তাবটি ফিরিয়ে দেন।

Bg Copy60, এক সময় কাপড়ের কারখানায় কাজ করতেন ১ হাজার টাকা আজ হয়েছেন ১৮০ কোটি টাকার মালিক!, এক সময় কাপড়ের কারখানায় কাজ করতেন ১ হাজার টাকা, আজ হয়েছেন ১৮০ কোটি টাকার মালিক!

তবে ১৯৯৭ সালে মণি রত্নমের প্রযোজনায় ‘নেরুক্কু নের’ ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব পান। এই প্রস্তাব তিনি পারেননি ফিরিয়ে দিতে। এই ছবির মাধ্যমে অভিনয় জগতে আসা। তবে ২০০১ সালে ‘নন্দা’ সিনেমাটি তাঁর ক্যারিয়ারের রূপরেখার বদল ঘটায়। এই ছবির জন্য তিনি তামিলনাড়ু রাজ্য চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা অভিনেতার পুরস্কার পান। এছাড়াও ‘রক্তচরিত্র’, ‘পিথামগান’, আয়থা এঝুথু এবং ‘২৪ মুভি’-এর মতো বিখ্যাত ছবিতে কাজ করেছেন তিনি। তবে একটা সময়ে তিনি যথেষ্ট পরিশ্রম করে রঘুবরণের পরামর্শ মেনে বাবার তরফে নয়, নিজের আলাদা পরিচয় তৈরি করেন।

Leave a Comment